বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৮, ২০২৪
হোমজেলাব্রাহ্মণবাড়িয়াকসবার বায়েকে বিল্লাল চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন, সরকারি অর্থ আত্মসাতের প্রশ্নই ওঠে না...

কসবার বায়েকে বিল্লাল চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন, সরকারি অর্থ আত্মসাতের প্রশ্নই ওঠে না ,রেলওয়ে আমার পৈত্রিক জমি অধিগ্রহণ করছে

নির্বাচন সামনে রেখে অপপ্রচারের অভিযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া কসবা উপজেলার বায়েক ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন সাবেক চেয়ারম্যান মো. বিল্লাল হোসেন। রোববার দুপুরে বায়েক ইউনিয়নের কৈখশী এলাকায় সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। গত ২৫ এপ্রিল একটি জাতীয় পত্রিকায় ‘ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলপথের জায়গা অধিগ্রহণ সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান এর বিরুদ্ধে কোটি টাকা বাগিয়ে নেয়ার অভিযোগ’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সাবেক চেয়ারম্যান মো. বিল্লাল হোসেন বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম রেললাইনের আখাউড়া-কুমিল্লা পর্যন্ত ডাবল লাইন নির্মাণের জন্য বাংলাদেশ রেলওয়ের পক্ষে জেলা প্রশাসক জমি অধিগ্রহণ শুরু করে। বালিয়াহুড়া মৌজার সেঃ মেঃ ২০৪ দাগের ২৬০ শতক ভূমি সরকার খাস দখল করে সরকারের নামে লিপিবদ্ধ হয়। সেই ভূমির ৪৫ শতাংশ ৯৯ বছর মেয়াদে সরকার খাস ভূমি বন্দোবস্ত নীতামালা অনুযায়ী ১৯৯২ সালে তৎকালীন জেলা প্রশাসক খবির উদ্দিন আমার পিতা মো. ফজলু মিয়ার নামে রেজিষ্ট্রি করে দেন। যা বিগত ১৯৯৩ সালে ৮০৪ নং দলিল হিসাবে রেজিষ্ট্রি হয় এরপর থেকে আমার পিতা তা ভোগ দখল করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ জরিপে সেই ভূমি ২নং দাগে পরিণত হলে ৩নং বি.এস খতিয়ান সৃজন হলে আমার পিতা ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনালে মামলা করার পর সেই জায়গার খতিয়ান সংশোধন সহ আমার পিতা মালিকানা নির্ধারণ হয়। ২০১৮ সালে রেলওয়ের জমি অধিগ্রহণের সময় আমার পিতার জমিও অধিগ্রহনের আওতায় আসে। পরে অধিগ্রহণের নীতিমালা অনুযায়ী মাপজোক করা ক্ষতিপূরণের টাকা প্রদান করে রেলওয়ে। পরে তারা সেখানে বালুদিয়ে ভরাট করে নতুন রেল লাইন নির্মাণ করেন। তিনি আরো বলেন, অধিগ্রহণকৃত জমি কখনো পানি উন্নয়ন বোর্ডের ছিল না। অধিগ্রহণকৃত জায়গার প্রকৃত মালিকানার অবস্থান না জেনে অসত্য বক্তব্য যাচাই না করে দায়িত্বশীল সাংবাদিক সংবাদ প্রকাশ করা দুঃখজনক ও মানহানীকর। আমাকে রাজনৈতিকভাবে হেয় করার জন্য ও আমার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য আমার প্রতিপক্ষ আমার নামে অপ্রচার করছে। আমি সেই প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কসবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ফেরদৌস ভূইয়া, বায়েক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলাল উদ্দিনসহ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments