বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২
হোমজেলাব্রাহ্মণবাড়িয়াকসবায় আইনমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানানোর সময় মেয়র সমর্থকদের উপর অতর্কিত হামলা-ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের...

কসবায় আইনমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানানোর সময় মেয়র সমর্থকদের উপর অতর্কিত হামলা-ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের অভিযোগ, হামলার জন্য উপজেলা চেয়ারম্যানকে দায়ী করলেন পৌর মেয়র

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় আইনমন্ত্রী আনিসুল হককে অভ্যর্থনা দিতে গিয়ে পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দুই মনোনয়ন প্রত্যাশীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ ও পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শুক্রবার সকালে উপজেলা পরিষদের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এক বছর পর শুক্রবার নিজ নির্বাচনী এলাকা কসবায় আসেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। এ জন্য কসবা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী বর্তমান মেয়র এমরান উদ্দিন জুয়েল এর সমর্থকেরা আইনমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানাতে উপজেলা পরিষদের সামনে রাস্তায় দাড়িয়ে স্লোগান দিচ্ছিলেন। এমন সময় উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মেয়র পদে আওয়ামী লীগের আরেক মনোনয়ন প্রত্যাশী এম এ আজিজ ও তাঁর সমর্থকেরা মোটরসাইকেলবহর নিয়ে অতর্কিতভাবে মেয়র জুয়েলের সমর্থকদের উপরে হামলা চালায়। এতে জুয়েলের সমর্থকরা প্রতিরোধ করতে গেলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে এম এ আজিজের সমর্থকেরা কসবা বাজারের বিভিন্নস্থানে থাকা কয়েকটি মোটরসাইকেল, দোকানপাট ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন।
কসবার মেয়র এমরান উদ্দিন জুয়েল বলেন, তাঁর সমর্থকেরা আইনমন্ত্রী আনিসুল হককে অভ্যর্থনা জানাতে উপজেলা পরিষদের সামনের রাস্তায় দাঁড়িয়ে স্লোগান দিচ্ছিলেন। এ সময় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট রাশেদুল কায়সার জীবনের নির্দেশে এম এ আজিজ ও তার সমর্থকেরা মোটরসাইকেলবহর নিয়ে আমার সমর্থকদের উপর অতর্কিত আক্রমণ করে বলে দাবী করেছেন মেয়র এমরান উদ্দিন জুয়েল। এতে জুয়েলের সমর্থকেরা প্রতিরোধের চেষ্টা করলে এম এ আজিজ ও তার লোকজন কয়েকটি মোটরসাইকেল, দোকানপাট ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। এম এ আজিজ দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা স্বীকার করে তার কয়েকজন সমর্থক আহত হয়েছেন বলে জানান।
পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রয়েছে বলে জানান, কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলমগীর ভূঁইয়া। এ বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, যারা সংঘর্ষে জড়াবেন, তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। তাদের বিরুদ্ধে দলীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments