সোমবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২২
হোমজাতীয়শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে প্রগতিশীল ৮ সংগঠনের সমাবেশ

শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে প্রগতিশীল ৮ সংগঠনের সমাবেশ

চট্টগ্রামের বাঁশখালিতে এস আলম গ্রুপের কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিকদের বকেয়া বেতন, কর্মঘণ্টা কমানোর দাবিতে আন্দোলনরত শ্রমিকদের উপর পুলিশের গুলিতে নিহত ৫ শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে এবং শ্রমিকদের দাবী মেনে নেওয়ার দাবিতে ৮টি বামপন্থী ছাত্র সংগঠনের বিক্ষোভ সমাবেশ আজ বিকাল ৫ টায় সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের সামনে অনুষ্ঠিত হয়।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক সালমান সিদ্দিকী ‘র সঞ্চালনায়, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ‘র সভাপতি ছাত্রনেতা মাসুদ রানার সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের সভাপতি ছাত্রনেতা আরিফ মঈনুদ্দিন, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ছাত্রনেতা ইকবাল কবীর, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি ছাত্রনেতা গোলাম মোস্তফা, বিপ্লবী ছাত্র যুব আন্দোলনের সভাপতি ছাত্রনেতা আতিফ অনিক, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি মিতু সরকার, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক মেঘ মল্লার বসু।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, “একদিকে ফ্যাসিবাদী আওয়ামীলীগ সরকার লকডাউন পালন করার জন্য জনগণকে ঘরে থাকতে বলছে অন্যদিকে শ্রমিকরা যখন নিজেদের ন্যায্য দাবিদাওয়ার দাবি জানাচ্ছে তখন পুলিশ গুলি করে শ্রমিক হত্যা করছে। একদিকে ফ্যাসিস্ট আওয়ামীলীগ সরকার লকডাউনের মাঝে শ্রমিকদেরকে কর্মক্ষেত্রে যোগদানের জন্য বাধ্য করছে আবার যখন শ্রমিকরা যখন নিজেদের বেতনের দাবিতে সংগঠিত হয় তখন শ্রমিকদের হত্যা করে৷ এই ঘটনাই প্রমাণ করে এই সরকার জনগণের সরকার নয়, এই সরকার কর্পোরেট কোম্পানিগুলোর সরকার।”

 

বক্তারা আওয়ামীলীগ সরকারকে হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, “শ্রমিকদের উপর গুলি চালানো বন্ধ করতে হবে। বাঁশখালিতে গুলি করে শ্রমিক হত্যার বিরুদ্ধে সারাদেশের জনগন ঐক্যবদ্ধ হোন। ফ্যাসিবাদী হাসিনা-রাষ্ট্রকে উচ্ছেদ করুন।

মন্তব্য করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments